logo

মনোহরদীতে কৃষককে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা: প্রতিবাদসভা ও মানববন্ধন পালন

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে নরসিংদীর মনোহরদীতে গত ১২ জুলাই শফিকুল ইসলাম (৩০) নামে এক কৃষককে নির্মম ভাবে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করেছে সন্ত্রাসীরা। কৃষক শফিকুলের বাড়ি মনোহরদী উপজেলার বড়চাপা ইউনিয়নের বীরমাইজদিয়া গ্রামে। শফিকুল ইসলাম মনোহরদী হাসপাতালে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। এই ঘটনায় শফিকুলের স্ত্রী মোছা:সোনিয়া আক্তার বাদি হয়ে মনোহরদী থানায় একটি মামলা দায়ের করে। মামলার বিবরণী, পুলিশ ও পারিবারিক সুত্রে জানা যায়, গত ১০ জুলাই চাচাত ভাই কামাল মিয়ার বিবাহের অনুষ্ঠান নারায়নগঞ্জে যাওয়ার পথে পতিপক্ষ মোস্তফা মাষ্টারের সাথে বাসের সিটে বসা নিয়ে শফিকুলের সাথে বাগি¦তন্ডা হয়। এক পর্যায়ে মোস্তফা মাষ্টার শফিকুলের শার্টের কলারে ধরে বাসের সিট থেকে সরে যেতে বলেন এবং শফিকুলকে অশ্লিল ভাষায় গালমন্দ করে। এ সময় ক্ষিপ্ত হয়ে মস্তোফা মাষ্টার বাস থেকে পুত্র তাইজ উদ্দিনকে মোবাইল ফোনে শফিকুলকে কঠিন বিচার করার নির্দেশ দেয়। পিতার কথায় পুত্র সায় পেয়ে ঘটনার দুই দিন পর সন্ত্রাসী তাইজ উদ্দিন শফিকুলকে খুন করার হুমকি দেয়। ১২ জুলাই ঘটনার দুই দিন পর শফিকুল এলাকার আ: বাতেন মিয়ার দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে নিজ বাড়ির কাছে পৌছলে তাইজ উদ্দিন ও মোস্তাফা মাষ্টার তার লোকজন সহ ধারালো অস্ত্র, লোহার রড, দা ছুড়া দিয়ে কৃষক শফিকুলের উপর হামলা চালায়। এ সময় সন্ত্রাসীরা তাকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। পরে শফিকুলের ডাকচিৎকারে আশপাশের লোকজন এগিয়ে এলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন তাকে উদ্বার করে মনোহরদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্ের ভর্তি কলে। এ ঘটনার পর থেকে আসামিরা পলাতক রয়েছে বলে মামলার বাদি সনিয়া আক্তার জানান। বীরমাইজদিয়া গ্রামের বাচ্চু জানান,তাইজ উদ্দিন এলাকার একজন বখাটে ও চিহ্নিত সন্ত্রাসী। তার অত্যাচারে এলাকার লোকজন অতিষ্ট। এদিকে সন্ত্রাসীদের বিচার দাবি করে গত রোববার বীরমাইজদিয়া নিন্মমাধ্যমিক বিদ্যালয় মাঠে এলাকার শতশত নারী-পুরুষ বেনার ফেষ্টুন নিয়ে প্রতিবাদ সভা, বিক্ষোভ মিছিল ও মানব বন্ধন করে। প্রতিবাদ সভায় বক্তব্য রাখেন,বড়চাপা ইউনিয়নের নব-নির্বাচিত চেয়ারম্যান ও অধ্যাপক এম সুলতান উদ্দিন। এ বিষয়ে মনোহরদী থানার মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ বলেন, ঘটনাটি মর্মান্তিক। সন্ত্রাসিরা শফিকুলকে নির্মমভাবে কুপিয়েছে। দ্রত আসামিদের ধরে আইনের আওতায় আনতে পুলিশ সর্বাত্মক চেষ্টা করছে। এ বিষষে শফিকুলের মা ফিরোজা বেগম বলেন, তাইজ উদ্দিন একজন সন্ত্রাস। সে আমার ছেলেকে অহেতুক মারধর করেছে এবং কুপিয়েছে। আমি তার বিচার চাই।

Comments are closed.







প্রধান সম্পাদক : ফজলুল হক জোয়ারদার আলমগীর, সহ-সম্পাদক : দেলোয়ার হোসেন শরীফ।
বার্তা সম্পাদক - মাসুম পাঠান, প্রধান কার্যালয়: ১৩/এ মনেশ্বর রোড, হাজারিবাগ, ঢাকা- বাংলাদেশ।
জোনাল অফিস: বাংলাদেশ কম্পিউটার এন্ড টেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট, কটিয়াদী বাজার (অগ্রনী ব্যাংক নিচতলা), কিশোরগঞ্জ।
ফোন : ০১৭১১-১৮৯৭৬১, ০১৭১১-৩২৪৬৬০, ০১৭৩২-১৬৩১৫৭।
ই-মেইল: news@ghatanaprobaha.com, ওয়েবঃ- www.ghatanaprobaha.com
ডিজাইন: একুশে