logo

কটিয়াদীতে স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে ২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ অপবাদ সইতে না পেরে বিষপানে আত্মহত্যার চেষ্টা

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কিশোরগঞ্জের কটিয়াদীতে ৭ম শ্রেণিতে পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ করে ২ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগে মামলা হয়েছে কটিয়াদী মডেল থানায়। প্রতিবেশী লোকজন ও দরবারিদের অপবাদ সইতে না পেরে শুক্রবার সকালে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে মেয়েটি। সে এখন কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। নির্যাতিতা মেয়েটি উপজেলার জালালপুর ইউনিয়নের জালাল উদ্দিনের কন্যা ও জালালপুর ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রণির ছাত্রী বলে জানা যায়।

অপহরণের পর ধর্ষণের শিকার ছাত্রীটির মামী বেদেনা খাতুন ঘটনাপ্রবাহ কে জানান , গত ৮ জুন সোমবার দিন আমার ভাগ্নিকে বাড়িতে রেখে পরিবারের অন্য সদস্যরা একই গ্রামের আত্মীয়ের বাড়িতে ধান ও বাদাম সংগ্রহের কাজ করতে যায়। তারা রাতে বাড়িতে ফিরে মেয়েকে না পেয়ে বিভিন্ন স্থানে খোঁজাখুঁজি করেও কোন সন্ধান পায়নি। ১০ জুন বুধবার বিকাল ৩ টার দিকে মেয়ের পিতা জালাল উদ্দিন মাঠে মস্তোফার ভুট্টা খেতে হাত, পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখতে পায়। এ সময় তার বাঁধন খুলে দিলে সে জানায় সূর্য উঠার পূর্বে তাকে হৃদয়, আমিন ও রাসেল এ অবস্থায় ফেলে রেখে যায়। এ অবস্থা থেকে তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে আসলে সে জানায় সোমবার সন্ধার পর হৃদয়, আমিন ও রাসেল বাড়িতে এসে জোরপূর্বক গামছা দিয়ে তার মুখ ও চোখ বেঁধে তুলে নিয়ে যায়। তাকে নিয়ে যাওয়ার পর ২ রাত আটকে রেখে হৃদয় তাকে ধর্ষণ করে। বৃহস্পতিবার বিকালে মেয়েটির মা জোসনা আক্তার বাদী হয়ে অপহরণ ও ধর্ষণের সাথে জড়িত ৩ জনকে আসামী করে কটিয়াদী মডেল একটি অভিযোগ দায়ের করেন। অভিযোগ দায়েরের পর গ্রামের কিছু দরবারি টাকা পয়সার বিনিময়ে বিষয়টি মিমাংশা করে মামলা তুলে নিতে চাপ সৃষ্টি করে। তাতে আমরা রাজি না হওয়ায় তারা মেয়েকেসহ আমাদেরকে গালিগালাজ করলে সে অপবাদ সইতে না পেরে সকলের অগোচরে আজ শুক্রবার সকাল ৯ টার দিকে সে কীটনাশক পান করে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে। আমরা বিষয়টি জানতে পেরে সাথে সাথেই তাকে কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি। এখানে তার অবস্থার অবনতি ঘটলে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করি। আমরা অপরাধীদের গ্রেফতার ও তাদের দৃষ্টান্তমূলক বিচার চাই।

কটিয়াদী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রাকিবুল আমিন বিজয় বলেন, স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রোগীর পাকস্থলী থেকে বিষ বের করার প্রয়োজনীয় সরঞ্জামাদি না থাকায় তাকে কিশোরগঞ্জ সদর হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে।

কটিয়াদী মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ এমএ জলিল ঘটনাপ্রবাহকে জানান স্কুল ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে থানায় মামলা হয়েছে। ধর্ষণের বিষয়ে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য শনিবার কিশোরগঞ্জে পাঠানোর পূর্বেই সে আজ শুক্রবার সকালে বিষপান করে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। মেয়েটি এখন চিকিৎসাধীন রয়েছে। আসামীদেরকে গ্রেফতারের অভিযান চলছে।

Comments are closed.







প্রধান সম্পাদক : ফজলুল হক জোয়ারদার আলমগীর, সহ-সম্পাদক : দেলোয়ার হোসেন শরীফ।
বার্তা সম্পাদক - মাসুম পাঠান, প্রধান কার্যালয়: ১৩/এ মনেশ্বর রোড, হাজারিবাগ, ঢাকা- বাংলাদেশ।
জোনাল অফিস: বাংলাদেশ কম্পিউটার এন্ড টেকনিক্যাল ইন্সটিটিউট, কটিয়াদী বাজার (অগ্রনী ব্যাংক নিচতলা), কিশোরগঞ্জ।
ফোন : ০১৭১১-১৮৯৭৬১, ০১৭১১-৩২৪৬৬০, ০১৭৩২-১৬৩১৫৭।
ই-মেইল: news@ghatanaprobaha.com, ওয়েবঃ- www.ghatanaprobaha.com
ডিজাইন: একুশে