logo

আর্ন্তজাতিক মানের বিনোদন স্বর্গরাজ্য

দেলোয়ার হোসেন শরিফঃ- ৩৭ একর জমির উপর অবস্থিত ড্রিম হলিডে পার্কটি ২০১১ সালের ৩১শে আগস্ট জনসাধারণের জন্য উন্মুক্ত করা হয়। পার্কে রয়েছে ওয়াটার আম্ব্রেলা, জলকামান, রেইনবো ওয়াটার, রাজহংস, অর্ধডুবন্ত অবস্থায় রয়েছে ঐতিহাসিক টাইটানিক সদৃশ জাহাজ। পানির তোড়ে ভেসে যাবার জন্য রয়েছে ড্রাইভিং টিউব আরো বেশি রোমাঞ্চিত ও শিহরিত করার জন্য সঙ্গে রয়েছে পানির ছন্দে বাজানো মিউজিক। ঘোড়ায় চড়ে শিশুরা স্বপ্নপুরীর দেশে যাওয়ার জন্য রয়েছে রকিং হর্স, ফাইটার ৮ বোট চালিয়ে অনায়াসে ঘুরে বেড়ানোর জন্য আছে নয়নাভিরাম ক্যানেল। শিশুরা সারাক্ষণ লম্ফঝম্প করে আনন্দ উপভোগ করার জন্য রয়েছে নাগেক ক্যাসেল। দু’জন মানুষ অনায়াসে প্যাডেল চালিয়ে পার্কের ওপর দিয়ে ঘুরে বেড়ানোর জন্য রয়েছে এয়ার বাইসাইকেল, যা বাংলাদেশের পার্কের ইতিহাসে এক নতুন সংযোজন। এ পার্কের অন্যতম আকর্ষণ অস্ট্রেলিয়ার বিখ্যাত ইমু পাখি। মায়াবী স্পটে কৃত্রিম জলজ প্রাণীর পিঠে চড়ে পৌঁছে যাবেন রূপকথার মৎস্যকন্যা মায়াবী দানবের দেশে কিন্তু এখানে পৌঁছতে আপনাকে সাহসী হতে হবে। কৃত্রিম অভয়ারণ্য অর্থাৎ অজগর, হরিণ, কুমিরসহ বিভিন্ন প্রাণীর সমাহার। এখানে ঘুরে বেড়ানোর জন্য রয়েছে নানা রকম মনোমুগ্ধকর পরিবেশ। ক্যানেলের চতুর্দিকে ঘুরে বেড়াতে মোজাইক পাথর দিয়ে তৈরি করা হয়েছে পায়ে হাঁটার অত্যাধুনিক রাস্তা। পাশাপাশি তৈরি করা হয়েছে আইসপাহাড়। আরও রয়েছে সাউন্ড সিস্টেম ও সার্বক্ষণিক সুরের মূর্ছনা, এবং কুঁড়েঘরে বসে বিশ্রাম নেয়ার সুব্যবস্থা। পার্কটিতে সার্বক্ষণিক ক্লোজসার্কিট ক্যামেরা ও সরকার প্রদত্ত পর্যাপ্ত নিরাপত্তা কর্মীর তত্ত্বাবধানে সুশৃংখল নিরাপত্তা ব্যবস্থা, গাড়ি পার্কিংয়ের বিশাল জায়গা, রাতযাপনের জন্য রয়েছে ডুপ্লেক্স বাংলো প্যাটার্নের কটেজ। যার মধ্যে রয়েছে শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত কক্ষে আধুনিক সুযোগ-সুবিধাসহ সপরিবারে থাকার সুব্যবস্থা। দর্শনাথীদের খাবারের চাহিদা মেটাতে এখানে রয়েছে অত্যাধুনিক চাইনিজ রেস্টুরেন্ট, বাংলা খাবারসহ চটপটি ফুচকা ও আইসক্রিম। বিনোদনের জন্য রয়েছে সঙ্গীতের নানা ধরনের উপকরণ। পার্লার পাশাপাশি রয়েছে বিখ্যাত জামদানি হাউস। পাবেন মেয়েদের থ্রি-পিস,বেড শিট ও অন্যান্য জিনিসপত্র। যে কেউ পুরো পরিবার নিয়ে নিশ্চিন্তে সময় কাটাতে পারেন। এত বিশাল আয়োজন নিয়ে করা পার্কটিতে বড়দের প্রবেশমূল্য ৩০০ টাকা আর ছোটদের ২০০ টাকা। আর ভিন্ন ভিন্ন রাইডে চড়ার জন্য রাইডপ্রতি আপনাকে গুনতে হবে মাত্র ৫০ টাকা থেকে ১০০ টাকা। ফ্যামিলি প্যাকেজ (৪৫০০ টাকা ৪ জন), কাপল প্যাকেজ (২৫০০ টাকা ২ জন)।
যেভাবে যাবেনঃ ঢাকার সায়দাবাদ বাসস্ট্যান্ড থেকে নরসিংদী গামী বাসে পার্কের সামনেই নামতে পারবেন। মহাখালী থেকে পুবাইল রোড হয়ে গেলে আপনাকে পাচঁদোনা নামতে হবে। নেমে রিকশা করে পার্কে যেতে হবে।

Share Button

Comments are closed.







প্রধান সম্পাদক : ফজলুল হক জোয়ারদার আলমগীর, সহ-সম্পাদক : দেলোয়ার হোসেন শরীফ।
নয়াপল্টন, আমিন প্লাজা, ঢাকা- বাংলাদেশ। ফোন : ০১৭১১-১৮৯৭৬১, ০১৭১১-৩২৪৬৬০।
ই-মেইল: news@ghatanaprobaha.com, ওয়েবঃ- www.ghatanaprobaha.com
Developed By: Ekushey.Info